বন্ধ করুন

গ্লোবাল ভয়েসেসকে শক্তিশালী করতে আমাদের সহায়তা করুন

আমরা ১৬৭টি দেশের উপর রিপোর্ট করি। আমরা ৩৫টি ভাষায় অনুবাদ করি। আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস।

প্রায় ৮০০ এর বেশী গ্লোবাল ভয়েসেস এর লেখক একসাথে কাজ করছে আপনার কাছে অজানা সব গল্প তুলে ধরতে। কিন্তু আমাদের পক্ষে একা সব করা কঠিন। আমাদের অনেকেই স্বেচ্ছাসেবক হলেও আমাদের সম্পাদক, প্রযুক্তি এবং অ্যাডভোকেসী প্রকল্প ও সামাজিক অনুষ্ঠানের ব্যয়ভারের মেটানোর জন্যে আপনাদের সাহায্য প্রয়োজন।

আমাদের সহায়তা করুন এখানে ক্লিক করে: »
GlobalVoices পাওয়া যাবে আরও জানুন »

সৌদি আরবঃ “সাম্প্রদায়িকতাকে না” বলতে রমযানের ইফতার

এক দল সৌদি পুরুষ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে তারা সাম্প্রদায়িকতার উর্ধ্বে উঠবেন। আর তা করতে দেশের শিয়াসুন্নি সম্প্রদায়ের সকল সদস্যকে একসাথে নিয়ে ইফতার করবেন। ইফতার হচ্ছে সান্ধ্যকালীন খাবার যা ইসলামের নিয়ম অনুযায়ী সারা দিনের রোযা শেষ করতে খাওয়া হয়।

“সাম্প্রদায়িকতাকে না” এই মূলভাবের ভিত্তিতে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে জনসমাগমটি ঘটে। এই ঘটনাটি উদযাপন করতে সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে পোস্ট করা ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে, সৌদির উভয় সম্প্রদায়ের লোকেরা পাশাপাশি দাঁড়িয়ে আছে।

হাসান আল আমির টুইটারে এই ছবিটি শেয়ার করেছেনঃ

Hassan Al Ameer shares this photograph of Sunni and Shia Saudis breaking their fast together in Riyadh

রিয়াদে শিয়া ও সুন্নি সৌদিদের একসাথে রোযা পূর্ণ করার এই ছবিটি হাসান আল আমির টুইটারে শেয়ার করেছেন।

মুসলিমরা মাসব্যাপী রোযার জন্য রমযান মাসকে বেছে নিয়েছে, যা দশ দিনের মধ্যে শেষ হবে। মুসলিমরা রমযানের সময়ে সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোযা রাখে এবং খাবার ও পানীয় পান করা থেকে নিজেদের বিরত রাখে। সূর্যাস্তের সময় তারা রোযা পূর্ণ করতে যে খাবার খায় তাই ইফতার।

রিয়াদ ইফতারের এই সফলতা দেশ জুড়ে এ ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে সৌদিদের আরও উদ্বুদ্ধ করেছে। এ্যাংরিসৌদি টুইট করেছেনঃ

نبي نسوي ايفنت ‎‫#لا_للطائفية‬‏ في المنطقة الشرقية .. من لها من الرعاة والداعمين والحضور ‎:)‏ ؟ ‎‪#saudi‬‏ ‎‪#dammam‬‏ ‎‪#khobar‬‏ ‎‪#dhahran‬‏ ‎‪#riyadh‬‏ ‎‪#ksa‬‏

@এ্যাংরিসৌদিঃ সাম্প্রদায়িকতাকে না বলার এই অনুষ্ঠান আমরা পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশেও আয়োজন করতে চাই। কারা এই অনুষ্ঠানে স্পন্সের হবেন? সহায়তা করবেন এবং উপস্থিত থাকবেন?

এই টুইটটি ২০০ বার পুনরায় টুইট করা হয়েছে।

এখানে, অনুষ্ঠানটির ফেসবুক পেজে এই ইফতারের আরো অনেক ছবি পাওয়া যাবে।

এ্যালবামটিতে বলা হয়েছেঃ

اتفق مجموعة من الشباب السعوديين السنة والشيعة على إقامة إفطار جماعي تحت عنوان “لا للطائفية” وذلك لنبعث رسالة للجميع بأننا كلنا إخوة نجتمع في إنسانيتنا وفي إسلامنا ومواطنتنا، ولنرفض الفرقة وندعم الوحدة.
শিয়া ও সুন্নি উভয় সম্প্রদায়ের এক দল সৌদি তরুণ ‘সাম্প্রদায়িকতাকে না’ বলার এই ইফতার আয়োজন করতে একমত হয়েছে। এই আয়োজনের লক্ষ্য সবাইকে এই বার্তা পৌছে দেওয়া যে মনুষ্যত্ব, ইসলাম ও জাতি হিসেবে আমরা সবাই ভাই ভাই। আর এ কারণেই আমরা একতাকে সমর্থন করি এবং বিভক্তিকে অস্বীকার করি।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .


বিশ্বের অঞ্চলসমূহ

দেশ

ভাষা

বিশেষ টপিক

লেখাটির সাথে আছে