উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইয়েমেনঃ একত্রীকরণ বার্ষিকীতে আত্মঘাতী হামলা

২১ মে, ইয়েমেনের রাজধানী সানায় একটি সামরিক কুচকাওয়াজ মহড়ায় আত্মঘাতী হামলায় প্রায় ১০০ জন নিহত ও কমপক্ষে ২০০ জন আহত হয়েছে।

সামরিক পোশাক পরিহিত বোমানিক্ষেপকারী উত্তর ও দক্ষিণ ইয়েমেনের ২২তম একত্রীকরণ বার্ষিকীতে কুচকাওয়াজ মহড়ারত সৈন্যদের মাঝখানে বিস্ফোরণ ঘটায়।

আল কায়েদা (একিউএপি) দক্ষিণ ইয়েমেনের উপর মার্কিন হামলার প্রতিশোধ নিতে আপাতত এই আক্রমণের দায়ভার নিজের কাঁধে নিয়েছে। যাহোক, অনেক ইয়েমেনি তাদের সন্দেহ প্রকাশ করেছে।

নিচের ভিডিওটিতে [আরবী ভাষায়] বিস্ফোরণের পর সাবাইন রোডের তাৎক্ষণিক অবস্থা দেখানো হয়েছ [সতর্কীকরণ ধ্বংসাত্মক ছবি]।

সাংবাদিক টম ফিন এই দৃশ্যে ছিলেনঃ

@টমফিন২: সাবাইনে সর্বত্র পুলিশ। রাস্তার উপর মাংসের টুকরো ছড়ানো। আহত সবাই হাসপাতালে। ‬

@টমফিন২: অ্যাম্বুলেন্সগুলো এখনো সানায় ছুটছে। ডাক্তাররা বললেন হাসপাতালগুলো পূর্ণ।‬

ইয়েমেনের সাম্প্রতিক খবরে আত্মঘাতী বোমায় নিহত কয়েকজনের একটি গ্রাফিক ছবি টুইটবার্তায় দেয়া হয়েছে এবং ইব্রাহিম মনথানা একটি গ্রাফিক ভিডিওতে একটি ওয়েবঠিকানা টুইট করেছেন।

বৈরুতে এক ছাত্র কর্মী ফারিয়া আল মুসলিমি মন্তব্য করেনঃ

@আলমুসলিমি: এটি ইয়েমেনে একটি ভয়াবহ দিন এবং একই সাথে হাদীর [প্রেসিডেন্ট আব্দো রাব্বো মানসুর] জন্য সামরিক বাহিনীকে সুসংগঠিত করার জন্য জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণ করার একটি সুবর্ণ সুযোগ।

প্রেসিডেন্ট হাদী ঐ আক্রমণের পর সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আবদুল্লাহ সালেহের এক ভাইপোসহ নিরাপত্তা পরিষদে প্রতিস্থাপনের জন্য একটি আদেশ[আরবী ভাষায়] জারি করেছেন।

মাই সালেহ টুইটবার্তায় বলেছেনঃ

@এফোরমাই: ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট হাদীর নির্দেশ অনুযায়ী নিরাপত্তা পরিষদের নতুন অধিনায়ক হয়েছেন ফাদহেল আল কাওয়াসি

তিনি আরো বলেনঃ

@A4Mai: তো আম্মারকে [সালেহের ভাইপো] কি বের করে দেয়া হল? এই আদেশ জারি হওয়ার জন্য কি আমাদের এই দুর্যোগ দেখতে হল? ‪#Yemen‬

ইয়েমেনের সানায় আত্মঘাতী বোমা হামলার স্থান

ইয়েমেনের সানায় আত্মঘাতী বোমা হামলার স্থান যেখানে কমপক্ষে ৯৬ সৈন্যের প্রাণহানি হয়েছে। ছবি লিউক সোমার্সের সৌজন্যে, কপিরাইট © ডেমোটিক্স (২১/৫/২০১২)।

যদিও কিছু সংবাদ মাধ্যম প্রচার করেছে যে আল কায়েদা এই হামলার দায়দায়িত্ব নিয়েছে, তারপরও অনেকে আরো কিছু জানার অপেক্ষায় রয়েছে।

ইয়েমেনের শিক্ষাবিদ গ্রেগরি ডি. জনসন মন্তব্য করেছেনঃ

@গ্রেগরিডিজনসন: ইয়েমেনে আজকের হামলা নিয়ে দয়া করে গুজব কম ছড়ান। আমি কথা দিচ্ছি, “আমি জানি না” বলতেও কোন সমস্যা নেই

আরো প্রমাণ চেয়ে, মাই সালেহ টুইটবার্তা পাঠিয়েছেনঃ

@এফোরমাই: ইয়েমেনে হামলার দায়দায়িত্ব নিয়ে একিউপিএ-এর স্বীকারোক্তিমূলক বার্তায় কি খুশি‬

নিউজ অফ ইয়েমেন রেভল্যুশন ফেসবুক পাতার বার্তা বলা হয়েছে যে বিস্ফোরণের ১২ ঘন্টা পূর্বে, একটি সালেহ-সমর্থিত ফেসবুক পেইজ এই হামলার পূর্ব অনুমান করেছিল এবং একটি ওয়েবঠিকানা পাঠিয়েছিল, যা পরে মুছে দেয়া হয়েছে।

মোহাম্মেদ ভাবছেন আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী কিভাবে চোখ এড়িয়ে গেলঃ

@Yemen4Change: ‪#Yemen‬ | কথা হলঃ আত্মঘাতী হামলাকারী বিস্ফোরকসহ সামরিক পোশাক ও বেল্ট পরে ছিল, কেউই দেখে নি? ‪#Sanaa

ফারিয়া আল মুসলিমির প্রশ্নঃ

@almuslimi: সৌদি গোয়েন্দা দিয়ে একিউএপি সম্পর্কে কেন তথ্য দিয়ে কোন সাহায্য করে নি যখন তা আমেরিকায় বোমা হামলার সাথে সম্পর্কিত #আশ্চর্য ‪#YEMEN‬

অনেক দৃষ্টিভঙ্গি ও প্রশ্নের মধ্যে, ইয়েমেনের মানবাধিকার মন্ত্রী হুরিয়া মাশহুর টুইটবার্তা পাঠিয়েছেনঃ

@হুরিয়া মশহুর: মানবতার বিরুদ্ধে এসব অপরাধের বিরুদ্ধে স্বচ্ছ তদন্ত হবে।

প্রসিদ্ধ ইয়েমেনি কর্মী ও ব্লগার আতাফ আলওয়াজির জনগণকে পুনরাবৃত্তিমূলক সংবাদের চেয়ে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণে উৎসাহিত করেছেনঃ

@উইমেনফ্রমইয়েমেন: সবসময় খোলা মনে থাকুন এবং সবকিছুকে তার মত করে দেখবেন না। কোন ব্যক্তিকে নকল করবেন না। প্রশ্ন ও বিশ্লেষণ করুন। সেজন্য আমাদের একটি মন আছে।

বিস্ফোরণের দিনটি অবশ্যই ইয়েমেন ও সানার সবচেয়ে দুঃখের দিনগুলোর একটি। এই হামলা মার্কিন-ইয়েমেনি যৌথ রাজনৈতিক সন্ত্রাস প্রতিরোধ কার্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে, এবং এই বিতর্ককে আরো তীব্র করেছে যে মার্কিন ড্রোন হামলার ফল হল বিপরীত ও সাধারণভাবে চরমপন্থা।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .