বন্ধ করুন

গ্লোবাল ভয়েসেসকে শক্তিশালী করতে আমাদের সহায়তা করুন

আমরা ১৬৭টি দেশের উপর রিপোর্ট করি। আমরা ৩৫টি ভাষায় অনুবাদ করি। আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস।

প্রায় ৮০০ এর বেশী গ্লোবাল ভয়েসেস এর লেখক একসাথে কাজ করছে আপনার কাছে অজানা সব গল্প তুলে ধরতে। কিন্তু আমাদের পক্ষে একা সব করা কঠিন। আমাদের অনেকেই স্বেচ্ছাসেবক হলেও আমাদের সম্পাদক, প্রযুক্তি এবং অ্যাডভোকেসী প্রকল্প ও সামাজিক অনুষ্ঠানের ব্যয়ভারের মেটানোর জন্যে আপনাদের সাহায্য প্রয়োজন।

আমাদের সহায়তা করুন এখানে ক্লিক করে: »
GlobalVoices পাওয়া যাবে আরও জানুন »

কুয়েত: দেশটির সবচেয়ে বড় প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

কুয়েতে নির্বাচনী আইন পরিবর্তনের বিরুদ্ধে ডাকা প্রতিবাদ সমাবেশকে টিয়ার গ্যাস আর গ্রেনেড ছুঁড়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়েছে। কারামাত ওয়াতান মার্চ (জাতীয় মর্যাদা রক্ষা সমাবেশ) নামের এই প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছিল রোববারে। টুইটারের মাধ্যমে সংগঠিত এই সমাবেশে দেশের তিন মিলিয়ন লোকের মধ্য থেকে ১৫০,০০০ জন অংশ নিয়েছিল। দেশটির মিডিয়া কুয়েতের ইতিহাসে সবচেয়ে বৃহত্তম সমাবেশ বলে মন্তব্য করেছে।

কুয়েতের আমীর শেখ সাবাহ আল আহাম্মদ আল সাবাহ নির্বাচনী আইন পরিবর্তন করে একটি আদেশ জারি করেন, এর প্রতিবাদে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আইন পরিবর্তনের ফলে একজন ভোটার চারজনের জায়গায় একজনকে ভোট দিতে পারবে। এবং এই পরিবর্তিত আইনটি কুয়েতের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ব্যবহার করা হবে। সমাবেশটি শুধুমাত্র এই পরিবর্তনের জন্যই অনুষ্ঠিত হয়নি। সংসদের সম্মতি অথবা জনগণের মতামত ছাড়াই আইন পরিবর্তনের প্রতিবাদে সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। গত জুনে আমীর কুয়েতের জাতীয় সংসদ ভেঙ্গে দেন।

বিরোধীদল প্রতিবাদ সমাবেশ করে। তবে কখনোই এ পরিমাণ গণজমায়েত করতে পারেনি। বিরোধী রক্ষণশীল ইসলামী দলের সাথে মতভিন্নতা থাকলেও উদারপন্থী ‘তাহালব’ প্যান অ্যারাবিস্ট ‘মানবার’ পার্টি রোববারে সমাবেশে অংশ নেয়।

এই সমাবেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটা দিক হলো, এটি সংগঠিত হয়েছে টুইটারের মাধ্যমে। @কারামাতওয়াতান নামের একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট এই প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দেয়। এটি কমলা অ্যাভাটারের পরামর্শ দেয় (২০০৬ সালে নির্বাচনী আইন ২৫টি জেলা থেকে ৫টি করার পরিবর্তনের বিরুদ্ধে ইয়ুথ মুভমেন্টের রেফারেন্স হিসেবে) এবং নিচের ম্যাপের স্থানগুলোতে সমাবেশ সংগঠিত করে:

The protest route

প্রতিবাদ সমাবেশের রুট। @কারামাতওয়াতানটু্ইটারে শেয়ার করে।

স্বাভাবিকভাবেই কুয়েতিরা প্রতিবাদ সমাবেশের ছবি এবং ভিডিও টুইটারে পোস্ট করে। এখানে কিছু ছবি দেয়া হলো:

One of the signs the police asked its holder to drop

টুইটারে @এনফরনাসেরবলেছেন, পুলিশ তাকে প্ল্যাকার্ড নামিয়ে ফেলতে বলে, তা না হলে পিটাবে। প্ল্যাকার্ডে লেখা: জনগণের ওপর বিশ্বাস রাখুন। সিস্টেমকে অবিশ্বাস করুন।

প্রতিবাদ সমাবেশে আগত জনতা। ছবি @নাউরা_ইব্রাহিম এর সৌজন্যে

আহত প্রতিবাদকারী। ছবি পোস্ট করেছেন @বুনাওয়াফ

আরেকজন আহত প্রতিবাদকারী। ছবি পোস্ট করেছেন @থ্রিআসালাসওয়াদ

কাঁদানো গ্যাস থেকে বাঁচতে প্রতিবাদকারীরা ছুটছেন। ছবি পোস্ট করেছেন @জানার্লিস্পিকিং

জনতা এক কাতারে বাঁধা। এটি ইউটিউবে পোস্ট করেছেন কিউ৮জো৭এ

দূর থেকে নেয়া জনতার সমাবেশ। এটি পোস্ট করেছেন জোজিফানতো

টিয়ার গ্যাসের আক্রমণ থেকে পালাচ্ছে জনতা। ব্লগার আলজিয়াদি এটি পোস্ট করেছেন:

সোমবার [অক্টোবর ২৩] সাবার অনলাইন পত্রিকা সংবাদ দেয় সব আটককারীদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে:

@Sabrnews: عاجل/ إطلاق سراح جميع معتقلي مسيرة “كرامة وطن

জরুরি: কারামাত ওয়াতান মার্চের সব আটককৃতদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .


বিশ্বের অঞ্চলসমূহ

দেশ

ভাষা

বিশেষ টপিক

লেখাটির সাথে আছে