উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ভারত: কোদানকুলাম আনবিক শক্তি কেন্দ্র নিয়ে আন্দোলন এখনও চলছে

গত মাসে ব্যাপক প্রতিবাদের মুখে ভারতের তামিল নাডু রাজ্যের তিরুনেলভেলি জেলার কোডানকুলাম আনবিক শক্তি কেন্দ্র চালু হয়েছে (এ বিষয়ে গ্লোবাল ভয়েসেস-এর পূর্বের প্রতিবেদন , দেখুন)। আনবিক শক্তি কেন্দ্রটি স্থাপন করা হয়েছে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য। কিন্তু প্রতিবাদী মানুষদের অনেককে কারাগারে নেবার পর পরিস্থিতি খুব খারাপ হয়। যারা আনবিক শক্তি কেন্দ্র স্থাপনের বিরোধীতা করছেন, তাদের সমর্থনে চলতি সপ্তাহে সারা ভারত জুড়ে পক্ষকালব্যাপী প্রতিবাদ সমাবেশ আহবান করা হয়েছে।

১৪ অক্টোবর, রবিবার রেভলুশনারী ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট প্রতিবাদকারীদের বিনা বিচারে আটক রাখার বিরুদ্ধে বিবৃতি দিয়েছে। তারা একই সঙ্গে  তামিল নাডুর কোডানকুলাম আনবিক শক্তি কেন্দ্রে যাওয়ার পথে অল ইন্ডিয়ান ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং দলের সদস্যদের বন্দী করার ঘটনাটিরও নিন্দা জানিয়েছে। গত ১২ অক্টোবর ‘অবৈধ গণসমাবেশ’ করায় কোদানকুলাম থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে নানগুনেরি এলাকাতে তাদের আটক করা হয়। একদিনের আটকাদেশ শেষে পুলিশ অপরাধ আইনের বিভিন্ন ধারায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেশ করে। অল ইন্ডিয়ান ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং দলের সদস্যদের পালায়ামকোটাই জেলে রাখা হয়েছে।

সংহতির মতে:

কোদানকুলাম এলাকার জনগণ সাহসের সাথে আনবিক শক্তি কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনে লড়েছে। মাসজুড়েই তারা তাদের ঘরবাড়ি, ভিটেমাটি থেকে বের হয়ে এসেছে। আনবিক শক্তি কেন্দ্রের ফলে চারপাশে নিরাপত্তা ইস্যু, পরিবেশগত বিপর্যয়ের ভয়-সহ মানুষজনের দাবি দাওয়া তো সরকার মেনেই নেয় নি, উল্টো নিষ্ঠুরভাবে জনগণের আন্দোলনকে প্রতিহত করেছে। সরকার ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিমের লোকজনকে ঘেরাবদ্ধ করে দমন করেছে। এর মাধ্যমে বোঝা যায়, সরকার চায় না জনগণ এ বিষয়ে কথা বলুক। এমনকি কোদানকুলামের সঠিক অবস্থা জানুক। সরকার এও চায় না জনগণ নির্ভীকভাবে আন্দোলন করুক। সরকার চাইছে সেখানে ভীতি প্রদর্শন করতে। এবং যেসব সহমর্মী মানুষ এগিয়ে এসেছেন, আনবিক শক্তি কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনে সমর্থন জানিয়েছেন তাদের টুঁটি চেপে ধরতে।

আনবিক শক্তি কেন্দ্র বিরোধী প্রচারণার সমর্থনে প্রতিবাদকারীরা সারাদেশ থেকে স্বাক্ষর পাঠান। ছবি তুলেছেন দীপ্তি দেশাই। কপিরাইট ডেমোটিক্স (১৫.০৩.২০১২)।

রবিবারে কেরালার সোশ্যালিস্ট জনতা পার্টি তামিল নাডুর কোদানকুলাম প্রকল্পের বিরোধী জনতাকে সমর্থন জানিয়েছে।

আন্দোলনে মেয়েদেরকেও জেলে পোরা হচ্ছে। আনিতা এ বিষয়ে একটি পোস্ট লিখেছেন। পোস্টটির শিরোনাম- জেল থেকে কোদানকুলামের নারীরা: সবাইকে বলি আমরা এখনও জেলে আছি!

জাভিয়ারামা বলেন, “আমরা এখানে আছি, কারণ পৃথিবী আর কোনো আনবিক শক্তি কেন্দ্র দেখতে চায় না। এগুলো বিপদজনক এবং বেহিসাবি… আমি দেখেছি, দেশের বিভিন্ন প্রান্তের অসংখ্য লোক এর প্রতিবাদ করছেন। এটা শুধুমাত্র তাদের জমি এবং সাগর হারানোর বিষয় নয়। এটা এমন একটি জায়গা তৈরির ব্যবস্থা যেখানে তাদের জীবন বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে। আপনি বলুন, এমন একটা জায়গায় কে থাকতে চাইবে?”

অন্য একজন নারী সেলভি বলেন, “এটা শুধু আমাদের সংগ্রামের অংশ নয়। এটা আমরা উপলদ্ধি করেছি, চেষ্টা করছি নিজেদের মতো করে, আবহমানকাল ধরে যেভাবে জীবনযাপন করে এসেছি সেভাবে বাঁচতে। জনগণের সাথে কোনোরকম পরামর্শ ছাড়াই তারা আমাদের আন্দোলনকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে, এটাকে অপরাধ তুল্য ও রাজবৈরী ভেবেছে।”

সান্দারি বলেন, “আমরা এখানে এসেছি একটা সাধারণ কারণে- পৃথিবীর জন্য আমরা এখানে এসেছি।‍”

তারা পৃথিবীবাসীকে বলতে চায়, তারা সেখানে আছে। তারা কংক্রিট এবং লোহায় আবদ্ধ লক আপে আছে।

“সবাইকে বলো আমরা এখনও এখানে আছি।”

তারা এখনও “মানুষের আবিস্কৃত সবচেয়ে ক্ষতিকারক টক্সিক মুক্ত” বিশ্বের স্বপ্ন নিয়ে ট্রিচাইয়ের নারী জেলে বন্দি আছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .