বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

অস্ট্রেলিয়াঃ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে শক জোকের বিদ্রূপাত্মক আক্রমণের ঘটনায় অনলাইনে তীব্র ক্ষোভ

শনিবার, ২০১২ তারিখ রাতে অস্ট্রেলিয়ার সামাজিক প্রচার মাধ্যমগুলোয় স্বতস্ফূর্ত ক্ষোভ দেখা দেয় এবং অনলাইন প্রতিক্রিয়ায় ফেটে পড়ে, যখন এই সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে যে সানডে টেলিগ্রাফের একজন সাংবাদিক প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিলার্ডের পিতাকে নিয়ে করা একটি কুরুচিপূর্ণ উক্তি চিহ্নিত করেছে, যা কিনা বিতর্কিত রেডিও জকি শক জক এ্যালান জোনসের করা। টুইটার এবং ফেসবুকে এই ক্ষোভ এক দাবীতে রূপান্তরিত হয়ে, আর তা হচ্ছে তাকে উক্ত প্রোগ্রাম থেকে বরখাস্ত করা।

ইন আদার ওয়ার্ডস-এ ব্লগিং করা টম কামিংস প্রথম এই বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করেন:

এই বিষয়টি এমনই বিরক্তিকর যেন আমি এক তিক্ত আচরণ করা বৃদ্ধের নাকে প্রবল ভাবে অক্সিজেন দিচ্ছি। এটি হচ্ছে এমন এক বিষয় যাকে চ্যালেঞ্জ করা উচিত। আগামীকাল রোববারে সানডে টেলিগ্রাফ প্রায় এক পাতার এক প্রবন্ধ প্রকাশ করবে, যাতে বর্ণনা করা হবে, কি ভাবে রেডিওর উপস্থাপক শক-জক এ্যলান জোনস, সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদারনৈতিক ক্লাবের সভাপতির প্রদান করা ডিনার বা রাতের আহারের সময় সেখানে উপস্থিত একদল তরুণ উদারনৈতিক সদস্যের মাঝে বলেন: প্রধানমন্ত্রী জুলিয়া গিলার্ডের পিতা যিনি সম্প্রতি দেহত্যাগ করেছে, ‘তিনি আসলে লজ্জায় মারা গেছেন’।

“কয়েক সপ্তাহ আগে মৃত্যু বরণ করা এই বৃদ্ধ মানুষটি লজ্জায় মারা গেছেন। এই চিন্তায় যে তার এক কন্যা আছে, যে কিনা প্রতি বার সংসদে ভাষণ দেওয়ার সময় মিথ্যা কথা বলে।”

টম, পরের দিন সানডে টেলিগ্রাফের এই ছবিটি এর সাথে যুক্ত করেছে যা কিনা টুইটারের মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে:

কমেডিয়ান এবং সামাজিক বিষয়ে ধারাভাষ্যকার ক্যাথরিন ডেভেনিউ অনেকের মাঝে অন্যতম একজন, যিনি জোনসের একদল স্পনসরের তালিকা পোস্ট করেছেন, যারা এই রেডিও স্টেশন থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে:

@ক্যাথরিনডেভেনিউ :
এখানে বেশ কয়েকটি কোম্পানীর তালিকা রয়েছে যাদের আপনি (#বয়কট২জিবি) উক্ত রেডিও স্টেশন এবং জোনসকে বয়কট করছে বলে বিবেচনা করতে পারেন, উভয়ের ক্রমাগত ঘৃণা এবং বিদ্বেষ ছড়ানোর কারণে। pic.twitter.com/hH8TvwaX ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১২

#বয়কট২জিবি নামক হ্যাশট্যাগ দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং এ্যালান জোনস নামটি অস্ট্রেলিয়ায় দ্রুত আলোচিত বিষয়ে পরিণত হয়।

alan jones

এ্যালান জোনস । ইভা রিনালল্ডির ফ্লিকার পাতা থেকে নেওয়া, যিনি একজন সেলিব্রেটি এবং লাইফ মিউজিক ফটোগ্রাফার

চেঞ্জঅর্গ-এর একটি অনলাইন দরখাস্ত যার নাম, “এ্যালান জোনসের রেডিও অনুষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত ২ জিবি এবং তার সহযোগী বিজ্ঞাপণী সংস্থাঃ দ্রুত চুক্তি বাতিল কর এবং এ্যালান জোনসের সাথে সর্ম্পকের ইতি টান”- সেখানে মঙ্গলবার, ২ অক্টোবর, সকাল পর্যন্ত ৭৫,০০০ জন নাগরিক স্বাক্ষর প্রদান করে। এর সাথে সম্পৃক্ত এক দরখাস্ত, যেটিতে ওলওর্থ-এর নির্বাহী, যার বিরুদ্ধে রাতের আহারের সময় নিলামে শ্যাফ ব্যাগ জাকেট দানের অভিযোগ রয়েছে, তাকে বরখাস্ত করার আহ্বান জানানো হয়। এর আগে জোনস প্রায়শ বিতর্ক সৃষ্টির জন্য জুলিয়া গিলার্ডকে শ্যাফ ব্যাগ হিসেবে অভিহিত করতেন।

প্রথমে মনে হচ্ছিলো যে এই বিষয়ে জোনস বা তার ঘটনাক্রমে দায়িত্বপূর্ণ ক্ষমা প্রার্থনার সমর্থক খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন হবে। জোনস নিজেকে রক্ষায় দাবী করছে যে সে নিজে ঘৃণা, মন্দ বাক্য এবং ঈর্ষার স্বীকার। ওয়ারেন চায় না যে এই বিষয় নিয়ে আমরা দীর্ঘ সময় ধরে মাতামাতি করি:

@সার্ফবার্ড০৩:যখন এ্যালান জোনসের মন্তব্য ছিল নির্বোধের মত, সেগুলোকে বাতাসে ছুঁড়ে দেওয়া হয়নি। হয়ত, মনে হয় এখন সেগুলো বলে ফেলার সময়। ১ অক্টোবর ২০১২

এত সব কিছু সত্ত্বেও বেশ কিছু টুইটকারী, জুলিয়া গিলার্ড এবং তার এএলপি (অস্ট্রেলিয়া লেবার পার্টি) সরকারের বিরুদ্ধে টুইট করে গেছে। টেড বাল লেবার দলের উপর মনোযোগ ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেছে:

‏@টেডবাল:
লেবার দলের সংসদ, যারা জুলিয়া গিলার্ডের পিতাকে রাজনৈতিক হাতিয়ারে পরিণত করেছে, তারা এ্যালান জোনসের চেয়ে নিকৃষ্ট না হলেও, তার মতই মন্দ। #auspol #alp #myliberal ১ অক্টোবর ২০১২

লেবার দলের নেতা টনি এ্যাবোটের উপর আক্রমণের পরে এই ঘটনা ঘটে, যে দাবী করছে যে সে রাজনৈতিক আলোচনার পরিমাণ কমিয়ে এনেছেন। এই বিষয়ে খুব সামান্য সন্দেহ রয়েছে যে ওয়েব বিতর্কের এই স্বর সাম্প্রতিক সময়ে খুব কমই এতটা তীব্র আকার ধারণ করেছে।

অনলাইনের নাগরিকরা এই বিষয় নিয়ে ফেসবুকেও ব্যস্ত ছিল। যথারীতি সোমবারে, টয়োটা অস্ট্রেলিয়ার পাতায় ৩৫০ টির মত মন্তব্য করা হয়েছিল। এ্যানি ফিটজিরাল্ড, বিভিন্ন জনের প্রকাশিত অনুভূতির এক সারাংশ তৈরি করেছে।:

ওহ খোদা! আমি টোয়োটাকে ভালোবাসি। দয়া করা আপনারা এ্যালান জোনসকে সমর্থন করা বন্ধ করুন। সামাজিক প্রচার মাধ্যমের এই প্রভাব আগামী বছরগুলোতেও চলতে থাকবে। গত সপ্তাহে মেলবোর্নে ঘটা বেদনাদায়ক ঘটনা এবং জোনসের আক্রমণাত্মক আচরণ দুটির মিলিত ফল, আরো অধিক নাগরিককে এই ভাবে প্রতিবাদে শামিল করছে। আমরা বছরের পর বছরের তাদের নাম নাম স্মরণ রাখবো যারা নৈতিকতাকে বাদ দিয়ে কেবল লাভ খুঁজেছে। আপনারা নিজেদের নাম এই তালিকা থেকে ছেঁটে ফেলুন! যতক্ষণ না আপনারা এই কাজটি করছেন, ততক্ষণ আমি আমার গাড়িতে, রাভা৪ মডেলের বিষয়ে একটা নিন্দাসূচক লেখা লাগিয়ে রাখ!!!!

এটা একটা দ্রুত ঘটে যাওয়া কাহিনী। কিছু বিজ্ঞাপনী এবং স্পনসর প্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যে এই প্রোগ্রাম থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে এবং কয়েকটি রেডিও স্টেশন এ্যালান জোনসের এই প্রোগ্রাম বাতিল করেছে। এ্যালান জোনসকে প্রদান করা অর্ডার অফ অস্ট্রেলিয়া নামক উপাধি বাতিল কর নামক একটি নতুন দরখাস্তে ৫০০ জন নাগরিক স্বাক্ষর করেছে। অস্ট্রেলিয়ান রাগবি ইউনিয়ানের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা জন্য ১৯৮৮ সালে তাকে এই উপাধি প্রদান করা হয়েছিল।

[ব্যক্তিগত নোটঃ এই প্রবন্ধের লেখক হচ্ছেন সে সমস্ত হাজার হাজার নাগরিকদের মধ্যে একজন, যে কিনা এ্যালান জোনসের আচরণের বিরুদ্ধে অনলাইনে আয়োজিত কয়েকটি কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছে।]

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .